অনেকেই, বিশেষ করে নতুন ফ্রিল্যান্সার রা, আমার কাছে জানতে চান, পিপল পার আওয়ার নাকি ফাইভার মার্কেটপ্লেস ভালো হবে, ফ্রিল্যান্সিং শুরু করার জন্য? এই প্রশ্নের সরাসরি কোন উত্তর নেই, তবে বিভিন্ন পার্সপেক্টিভ থেকে কোন মার্কেট কেমন হবে সেটার একটা কম্পেয়ার নিয়েই আজকের ব্লগ।

পিপল পার আওয়ার মার্কেট নতুনদের জন্য ভালো একটা প্লাটফর্ম কারন এখানে বেশ ভালো ক্লায়েন্ট আছে। যদি আপনি ভালো কাজ পারেন এবং আপনার কমিউনিকেশন দক্ষতা ভালো থাকে, তাহলে আপনি এখানে ক্যারিয়ার শুরু করতে পারেন।

কিন্তু ফাইভার মার্কেট এ রিসেন্ট আপডেট এর পরে নতুন ফ্রিল্যান্সারদের জন্য কাজ পাওয়া অনেক কঠিন হয়ে গেছে। তবে ফাইভার এর সুভিদা হচ্ছে, যদি আপনি ইনিশিয়ালি বেশ কিছু কাজ পেয়ে যান, এবং সেগুলো কোয়ালিটি সার্ভিস দেয়ার মাধ্যমে ক্লায়েন্ট থেকে ভালো রিফিউ পান! তাহলে আর আপনাকে পিছনে ফিরে তাকাতে হবে না।

কয়েকটি সেল হওয়ার পরে আপনি প্রচুর কাজ পেতে পারেন। ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ফাইভার এর জনপ্রিয়তা অনেক বেশি। ফাইভার এ ক্লায়েন্ট এর সংখ্য্যা অনেক। এই সময়ে এসে, আপওয়ার্ক এর পরেই ফাইভার মার্কেট এর অবস্থান। সেই হিসাবে আপনি যদি নতুন হিসাবে ফাইভারেও কাজ শুরু করতে পারেন।

এবারে আসি, মার্কেটপ্লেস এর ভেরিফিকেশনের ব্যাপারে! প্রতিটি মার্কেট প্লেস এ ফ্রিল্যান্সার একাউন্ট ভেরিফাই করতে হয়। পিপল পার আওয়ার এর ক্ষেত্রে, মার্কেট এর একাউন্ট খোলার পর পর ই সকল তথ্য সাবমিট করতে হবে। এই ভেরিফিকেশন প্রসেস করে মার্কেট এ একাউন্ট এপ্রুভ করতে হবে।

এর পর প্রথম কাজটি করে জমা দেয়ার পর, ক্লায়েন্ট এপরুভ করলে, আবারও আপনার একটি ভেরিফিকেশন প্রসেস এর মধ্য দিয়ে যেতে হবে। যেটা একটা লেন্থি প্রসেস। এই ভেরিফিকেশনের সময়ে, যদি আপনার তথ্যর সাথে পিপল পার আওয়ার এর একাউন্ট এর অথ্য না মিলে, তাহলে এই ভেরিফিকেশন আপনি পাস করতে পারবেন না।

কাজ ডেলিভারি দেয়ার পর, ক্লায়েন্ট এর জন্য একটি ভেরিফিকেশন প্রসেস রয়েছে। এখানে ভেরিফিকেশন না হলে, আপনার ফান্ড ক্লেয়ার হবে না। আবার লম্বা এই প্রসেস অনেক ক্লায়েন্ট করতে চায় না।

এই ভেরিফিকেশন এর জন্য, পিপল পার আওয়ার এ নতুনদের জন্য কাশ শুরু করা কিছুটা কঠিন। বিশেষ করে যদি আপনার হাতে প্রপার ডকুমেন্ট না থাকে।

অপরদিকে, ফাইভার এ যদি আপনি কাজ শুরু করেন, শুরুতে একাউন্ট করেই এপ্রুভ। ফোন নাম্বার দিয়ে ভেরিফিকেশন করা লাগবে। আর যদি আপনার পেমেন্ট ইনফর্মেশন ঠিক থাকে তাহলে আর কোন সমস্যা নেই।

ইমেইল মার্কেটিং এর মাধ্যমে ১০০০/মাস ডলার ইনকাম করুন

তবে রিসেন্ট সময়ে ফাইভার একটি ভিডিও ভেরিফিকেশন চালু করেছে। যেটা অনেক সহজ একটা প্রসেস। যদি আপনি ফেইক না হন, তাহলে আর কোন সমস্যা নেই। কয়েক মিনিটে এই ভেরিফিকেশন এর কাজ হয়ে যায়।

পিপল পার আওয়ার তুলনায় ফাইভার এর ভেরিফিকেশন অনেক সহজ। এখানে নতুনদের জন্য সহজে কাজ শুরু করার সুযোগ রয়েছে।

এবারে চার্জিং পলিসি নিয়ে কথা বলছি! পিপল পার আওয়ার নাকি ফাইভার, যে মার্কেটেই আপনি কাজ করেন না কেন, ২০% সার্ভিস চার্জ দিতে হবে। অর্থাৎ আপনি যদি ১০০ টাকা ইনকাম করেন তাহলে মার্কেটপ্লেস ২টি সার্ভিস চার্জ হিসাবে ২০টাকা কেটে রাখবে। আপনি ৮০ টাকা তুলতে পারবেন।

এক্ষেত্রে আপনি যেখানেই কাজ করেন না কেন, পিপল পার আওয়ার নাকি ফাইভার, এমনকি আপনি যদি আপওয়ার্কেও কাজ করেন তাহলে আপনাকে এই সার্ভিস চার্জ দিতে হবে। যদি আপনি ফাইভারে কাজ করেন তাহলে এই সার্ভিস চার্জ আপনার জন্য ফিক্সড। আপনি যদি কোন বোনাস পান তাহলে সেখান থেকেও ২০% চার্জ কেটে রাখা হবে।

অপর দিকে পিপল পার আওয়ার এ আপনি যদি কোন ক্লায়েন্ট ড্রাইভ করতে পারেন অর্থাৎ কোন ক্লায়েন্ট কে যদি বাইরে থেকে ইনভাইট করে নিয়ে আসতে পারেন, তাহলে আপনাকে কোন রকম সার্ভিস চার্জ দিতে হবে না।

পিপল পার আওয়ার এ ইনভাইট করা ক্লায়েন্ট এর সাথে আপনি আজীবন যত কাজ করেন না কেন, সার্ভিস চার্জ শুন্য থাকবে। অর্থাৎ এই প্রসেস ফলো করার মাধ্যমে কিন্তু আপনি পিপল পার আওয়ার এ শুন্য পারসেন্ট সার্ভিস চার্জ এ কাজ করার সুযোগ পাচ্ছেন।

এটা নতুনদের জন্য বিরাট সুযোগ। কারন ২০-৩০ ডলার এর প্রজেক্ট এ যদি ২০% সার্ভিস চার্জ দিতে হয় তাহলে অনেক টাকা চলে যায়। এই দিক দিয়ে, নতুন ফ্রিল্যান্সারদের জন্য পিপল পার আওয়ার সেরা মার্কেট হতে পারে।

লোকাল সেরা সফটওয়্যার কোম্পানি ইন বাংলাদেশ

পিপল পার আওয়ার নাকি ফাইভার, ২ মার্কেট প্লেস এ এফিলিয়েট প্রোগ্রাম আছে। তবে ফাইভার এর এফিলিয়েট প্রোগ্রাম তেমন জনপ্রিয় নয়। পিপল পার আওয়ার এ যদি আমাদের রেফারেল এ সাইন-আপ করেন, তাহলে একাউন্ট খোলার সাথে সাথে পেয়ে যাবেন ৩৫ডলার একেবারে ফ্রি তে।

এই ৩৫ ডলার পাবেন গিফট কুপন হিসাবে যেটা ব্যাবহার করে পিপল পার আওয়ার থেকে যে কোন সার্ভিস কিনতে পারবেন। এখানে আপনার আলাদা কোন সার্ভিস চার্জ দিতে হবে না। আমাদের রেফারেল থেকে সাইন-আপ করতে ক্লিক করুন এখানে।

পিপল পার আওয়ার নাকি ফাইভার, অথবা অন্য মার্কেট, যে কোন সমস্যাতে আমাদের ফেজবুক পেইজ এ নক করতে পারেন। আমরা চাই, আমাদের ইউথ রা ফ্রিল্যান্সিং এ খুব ভালো করুক। আমাদের এই টেক এলার্ট ব্লগ এবং ইউটিউব চ্যানেলে কিন্তু নিয়মিত ভাবে আমরা ফ্রিল্যান্সিং সংক্রান্ত পোস্ট দিয়ে থাকি।

আসাদুল্লাহ

আসাদুল্লাহ

মোঃ আসাদুল্লাহ একজন টেক ব্লগার! টেকনোলজির বিভিন্ন বিষয়ে জানতে এবং জানাতে ভালবাসে সে! অনলাইন মেইক মানি, গ্যাজেট, ট্রিক্স, অনলাইন সিকিউরিটি নিয়ে নিজে জানার সাথে সাথে সবাই কে জানাতেই এই ব্লগ!
পিপল পার আওয়ার এ একাউন্ট খুল্লেই পাবেন ২৮০০টাকা ফ্রি, tech alert bangla Previous post পিপল পার আওয়ার এ একাউন্ট খুল্লেই পাবেন ২৮০০টাকা ফ্রি!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close

টেক এলার্ট এর জনপ্রিয় ভিডিওঃ